অফবিট

জানেন কি রাস্তার ধারের গাছে কেন সাদা রঙ করা হয়? ৯৯% মানুষ জানে না

প্রায়ই দেখা যায় রাস্তার পাশে সারি বদ্ধ বড় বড় গাছের গুড়িগুলোতে সাদা রং করা রয়েছে। আমরা অধিকাংশ মানুষই এর কারণ জানিনা। আসুন এই রং করার পিছনে কি কি কারণ থাকতে পারে জানা যাক।

এ রঙ গুলি আসলে হলো চুন রং। প্রথমে, সাধারণত হাই ওয়ে, বা বড় রাস্তার পাশে যেখানে নিয়মিত গাছের পরিচর্যা নেওয়া সম্ভব নয় এমন এলাকার গাছ গুলিতে রং করা হতো। বর্তমানে তা সব স্থানেই দেখা যায়। গাছের গুড়িতে চুল লাগানো হয় যাতে সেই চুল আস্তে আস্তে গড়িয়ে কিংবা বৃষ্টির জলে ধুয়ে গাছের শিকড় অব্দি পৌঁছে যেতে পারে। এতে গাছের শিকড় বা গাছের গুড়ি গুড়ির মাটির কাছাকাছি অংশ পোকামাকড় পিঁপড়ে বা অন্য কোন কীটপতঙ্গের আক্রমণ থেকে রক্ষা পায়।

গাছের গুড়িতে চুন রং করা থাকলে গাছের গোড়া থেকে নতুন কোন অঙ্কুর গজালে তা পোকামাকড় কিংবা অন্য কোন তৃণভোজী প্রাণীর দ্বারা ক্ষতিসাধন হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। তাছাড়া অনেক সময় রাস্তার পাশের সরকারের সম্পত্তির অধীনে থাকা গাছগুলি সাধারণ মানুষের নজরে আনার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে গাছের গুড়িতে সাদা রং করে দেওয়া হয়। যাতে মানুষ সেগুলি না কেটে না ফেলে। আর কাটলেও যাতে সহজেই কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ে।

এছাড়া গাছের গুড়িতে সাদা রং করা থাকলে রাতের অন্ধকারে তা দেখতে সুবিধা হয়। ফলে অচেনা কোন লোক সেই রাস্তা দিয়ে অন্ধকারে এলে, রাস্তার পাশের সাদা গুড়ি গুলি তাকে পথ চলতে সাহায্য করে। এছাড়া অনেক অনেক সময় কর্তৃপক্ষ শুধুমাত্র সৌন্দর্য বৃদ্ধির কারণেও গাছের গুড়িতে সাদা রং করে দেওয়া হয়।

যদিও কিছু কিছু দেশে বর্তমানে দেখা যায় যে গাছের গুড়িতে চুনের বদলে সাদা রাসায়নিক রং করে দেওয়া হয়। কিন্তু এই রাসায়নিক রং গাছের স্বাস্থ্যের পক্ষে মোটেই ভালো নয়। গবেষকরা বলেছেন গাছের গায়ে রাসায়নিক রং করা গাছের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই বিপদজনক। রাসায়নিক রঙের মধ্যে এক প্রকার তেল থাকে যাতে গাছের আয়ু কমে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ফলে গাছের গায়ের রং করতে হলে একমাত্র চুন রঙই করা উচিত। তাতে যেমন গাছের কোন ক্ষতি হয় না উল্টে কিছু লাভও পাওয়া যায়।

Related Articles