বিনোদন

কারও নাম ‘ভেবলি’ তো কারও ‘দধিমণি’, টলি সুন্দরীদের মজার ডাকনাম জানলে হাসতে বাধ্য হবেন আপনিও

শুধুমাত্র পাড়ার কেল্টু বিল্টু বিশু নয়, টলিউড ইন্ডাস্ট্রির বড় বড় তারকাদেরও এমন সব নামে বাড়িতে ডাকা হয় যাতে করে তারাও লোক সমক্ষে লজ্জায় পড়বে। পর্দা কাঁপানো সুন্দরী নায়িকা মিমি, পাওলি, স্বস্তিকা, সায়ন্তিকা, রাইমাদেরও মজার মজার ডাক নাম আছে। টলিউডের এই সমস্ত অভিনেত্রীদের বাড়ির ডাক নাম শুনলে হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা হয়ে যাবে। এবার তাদের বাবা মা যদি সেই নামে বন্ধু বান্ধব বা মিডিয়ার সামনে ডেকে ফেলে তবে কি অবস্থা হয় বোঝা যাচ্ছে?

অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী একবার এক আলাপচারিতায় জানিয়েছিলেন তার মা তাঁকে ডাকে ‘মোনা সোনা’ বলে। ছোট বেলায় তিনি একটু মোটা ছিলেন। তাই ‘মোটু সোনা’ টা বদলে গিয়ে এই নাম। আর মিমির বাবা তাকে ডাকেন বকপাখি বলে। কারণ জিজ্ঞাসা করতে জানা গেল, মিমি নাকি মাঝে মাঝেই এক পায়ে দাঁড়িয়ে থাকেন। 

অভিনেত্রী শ্রীলেখারও একটি মজার ডাক নাম রয়েছে। ভেবলি! তবে অভিনেত্রীর ডাক নাম এখন আর শুধু বাড়ির মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় আর ঋতুপর্ণ ঘোষের কল্যাণে তা কাজের জায়গাতেও রাষ্ট্র হয়ে গেছে। আর টলিউডের হট সেনসেশন রাইমা সেনের ডাক নামের তো ছড়াছড়ি। এমনিতে অফিসিয়ালি বাড়িতে তাকে ডোলু বলে ডাকে হয়। তবে কাছের মানুষরা তাকে ডলস, ডলজি, ডোলি নামেও ডেকে থাকেন।

টলিউডের আরেক বম্ব পাওলি দামের কাছের লোকেরা তাকে ভালোবেসে পাও বলে ডাকেন। যদিও এই নামে ডাকটা অভিনেত্রী নিজেও খুব ভালোবাসেন। এমনকী, অভিনেত্রীর বরও তাঁকে এই নামেই ডাকেন। অভিনেত্রী সায়ন্তিকা ব্যানার্জি একবার জানিয়েছিলেন, ‘বাবা আমাকে দধিমণি বলে ডাকে, কারণ ছোটবেলা আমি দুধ খাওয়ার পর তা তুলে দিতাম। আমি এখন বাবাকে বলি সবার সামনে যেন আমাকে ওই নামে না ডাকে। আর বাবা ঠিক আমার পিছনে লাগার জন্য তাই করবে। এখন তো বন্ধুরাও আমার সঙ্গে ঠাট্টা করে, আমাকে রাগানোর জন্য দধিমণি বলে ডাকে।’

Related Articles