‘তাড়াতাড়ি করো’, দাদাগীরির মঞ্চে অসাধারন বাংলা বলে তাক লাগালেন নব্বই দশকের অভিনেত্রী শ্রীদেবী-র কন্যা জাহ্নবী কাপুর

জি বাংলার জনপ্রিয় গেম শো হল ‘দাদাগিরি’। এই শো-এর সঞ্চালক হলেন বাংলার ‘দাদা’ সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly)। তিনি প্রথম দিন থেকেই বাংলার মহিলাদের পছন্দের পুরুষ। তার রূপে মুগ্ধ অনেকেই। এছাড়াও তিনি বাংলার গর্ব। তাই এমন একজন মানুষের সান্নিধ্য পাওয়া সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার। আর তিনি যদি হন কারোর ছোটোবেলার ক্রাশ তবে সেই ব্যক্তির কাছে বাংলার ‘দাদা’র সঙ্গে দেখা হওয়ার প্রতিটা মূহুর্ত দামী হয়ে যায়।

বর্তমানে ‘দাদাগিরি’-এর নবম সিজন চলছে। এবারের সিজনে ‘দাদাগিরি’-এর ট্যাগলাইন হলো ‘যেখানে হাত বাড়ালেই বন্ধু হয়’। ‘দাদাগিরি’-এর মঞ্চে দেখা মেলে কলাকুশলীদের। মাঝেমধ্যে সিনেমা জগতের তারকাদের দেখা পাওয়া যায় আবার কখনও জি বাংলার নানান ধারাবাহিক থেকে কলাকুশলীরা আসেন এই মঞ্চ মাতাতে। এছাড়া ক্রিকেট জগত থেকে বলিউড অনেকেই এসেছেন জি বাংলার ‘দাদাগিরি’-এর মঞ্চে।

কিছুদিন আগে জি বাংলা চ্যানেলের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। সেই ভিডিওতে যাকে দেখা গিয়েছে তারপর অবাক হয়েছেন অনেকেই। গত ১৫ই মে স্পেশাল এপিসোডে ‘দাদাগিরি’-এর মঞ্চে দেখা গিয়েছে বলিউড অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুরকে। ইতিমধ্যে পর্বটি টেলিভিশনের পর্দায় সম্প্রচারিত হয়ে গিয়েছে। আর পর্বটি দেখে উচ্ছসিত অনেকেই।

বলিউডে নব্বই দশকের অভিনেত্রী শ্রীদেবী-র কন্যা জাহ্নবীকে ‘দাদাগিরি’-এর মঞ্চে দেখে উৎফুল্ল অনেকেই। এই পর্বে জাহ্নবীকে দেখা গিয়েছে সবুজ রঙের শাড়িতে। কথায় কথায় সৌরভ জাহ্নবীকে জানান এর আগে একসময় তার বাবা বনি কাপুর ও মা শ্রীদেবী এই মঞ্চে এসেছেন। এবার জাহ্নবী এসে তা পূরণ করল। তাকে জিগ্যেস করা হয় সে বাংলা কথা বলতে পারে কিনা। এর উত্তরে জাহ্নবী জানান সে একটিই বাংলা কথা বলতে পারে আর তা হল “তাড়াতাড়ি করো”। তার কথা শুনে সকলেই হেসে লুটোপুটি। পর্বটিতে দুই সেলিব্রিটির উপস্থিতি টিআরপি আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।