লাইফ স্টাইল

জেনে নিন রসুনের ১০টি আশ্চর্যজনক উপকারিতা

দৈনন্দিন খাদ্যাভ্যাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো রসুন। বহু বছর আগে থেকেই রসুনের ব্যবহার হয়ে আসছে। খাদ্য-সহ চিকিৎসা বিজ্ঞানেও এর বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। যদিও অনেকেই রসুনের গন্ধ একদমই পছন্দ করেন না। তবে রসুন সম্পর্কে আজ আমরা এমন কিছু তথ্য জানবো যা বিগত ৭ হাজার বছর ধরে প্রচলিত রয়েছে।

১. শোনা যায় ইউরোপের ‘হোয়াইট ম্যাজিক’র মূল মাধ্যম নাকি রসুন। রসুন দিয়ে নাকি তারা ভ্যাম্পায়ারের মোকাবিলা করে। রসুনের মালা বা রসুন ঘরের সামনে ঝুলিয়ে রাখলে ভ্যাম্পায়ার তাদের ঘরে আসতে পারে না।

২. কর্পূরের সঙ্গে পোড়া রসুন মেশালে নাকি ঘরে মশা, মাছি বা অন্যান্য পোকামাকড়ের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। এছাড়া রসুনকে জলের সাথে মিশিয়ে ঘর মুছলেও পোকামাকড় থাকে না।

৩. ইসলামে কাঁচা রসুন খেয়ে মসজিদে যাওয়া মোটে শোচনীয় নয়। কারণ, রসুনের গন্ধে আল্লাহর নাম করতে গিয়ে মন অন্যদিকে চলে যেতে পারে বলেই বিশ্বাস করেন এই ধর্মাবলম্বী মানুষেরা। হিন্দু ধর্মেও একই কারণে পূজা-অর্চনার সময় রসুনকে এড়িয়ে যাওয়া হয়।

৪. প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জখন সৈনিকদের চিকিৎসাতে সালফারের ঘাটতি পড়তো তখন রসুন ব্যবহার করা হতো।

৫. রসুনে রয়েছে ১৭ মাত্রার অ্যামাইনো এসিড যা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলোকে কাজ করতে সাহায্য করে।

৬. চাইনিজ খাবারে বেশি রসুন ব্যবহার করার কারণ হলো সেখানে বিশ্বের ৬৬ শতাংশ রসুন উৎপাদন হয়।

৭. রসুন হার্টের পক্ষে খুবই ভালো। কাঁচা রসুন খেলে কোলেস্টেরল কমে। এছাড়া সর্দি কাশিতেও এটি খুবই ভালো কার্যকরী।

৮. আপনি হয়তো শুনলে অবাক হবেন বিভিন্ন মিষ্টি জাতীয় খাবারে রসুনের ব্যবহার করা হয়। যার মধ্যে অন্যতম হলো ‘লাসুন কি ক্ষীর’।

৯. ১৯শে এপ্রিল বিশ্বজুড়ে ‘গার্লিক ডে’ বা ‘রসুন দিবস’ পালিত হয়।

১০. হাত থেকে রসুনের গন্ধ দূর করার জন্য ঠান্ডা জলের মধ্যে স্টিলের বাসরে হাত ঘষলে সেটি দূর হয়ে যায়।

Related Articles