নিউজ

কুকুর ‘ধর্ষণ’ -এর অভিযুক্ত যুবককে হাতেনাতে ধরে চরম শাস্তি দিল এলাকাবাসী

এবার দক্ষিণ কোলকাতার হরিদেবপুরে একটি ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। আর এই ঘটনার পর গোটা এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এক স্থানীয় যুবকের বিরুদ্ধে উঠল ‘ধর্ষণ’-এর অভিযোগ। এলাকাবাসীর তরফে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই রাতের অন্ধকারে এলাকার কুকুরদের উপর যৌন নিপিড়ন করা হত। আর সেই ঘটনায় অভিযুক্ত যুবকের নাম রঞ্জন বাড়ুই। বছর ২৬-এর রঞ্জন বাড়ুই-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে সে দীর্ঘদিন ধরে বাড়িতে কুকুর এনে যৌন নির্যাতন চালাতো।

তার ঘর তদন্ত করে মিলেছে প্রচুর সিরিঞ্জ ও ওষুধ। সোমবার রাতে এলাকার মানুষ ও পশুপ্রেমীরা অভিযুক্ত রঞ্জন বাড়ুইকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। আর তারপরই যুবকের কুৎসিত মানসিকতার পর্দা ফাঁস হয়।

তার ঘরে প্রচুর সিরিঞ্জ ও ওষুধের সঙ্গে একটি কুকুর ছানাও মিলেছে। অভিযুক্তকে হাতেনাতে ধরার পর তাকে উত্তেজিত জনতা ব্যাপক মারধর করে। তার মুখে কালি লেপে দেয়।

মাথায় ডিম ফাটানো হয়। আর এইরকম হইচই কান্ড ঘটার পর খবর পেয়ে হরিদেবপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়। এলাকার পশুপ্রেমী সমক চ্যাটার্জি ও তিতাস মুখার্জির বক্তব্য, এলাকায় ইতিমধ্যে ২০ টি কুকুরের মৃত্যু ঘটেছে। আরও কয়েকটি কুকুরের দেহে মিলেছে যৌন নিপিড়নের চিহ্ন।

Related Articles