নিউজ

‘দেশনায়ক দিবস’ হিসেবে পালন হবে নেতাজির জন্মদিন : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আগামী ২৩শে জানুয়ারি দেশনায়ক নেতাজী সুভাসচন্দ্র(Subhas Chandra Bose) বোসের জন্মদিন। আর সেই দিন বিশেষ কিছু কর্মসূচি করার কথা ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার নেতাজীর জন্মদিনে গোটা রাজ্য জুড়ে বাজবে সাইরেন-শঙ্খ। এছাড়া তিনি নেতাজীর নামে মনুমেন্ট ও বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির দাবি জানিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার রাজ্যে নেতাজীর জন্মদিন কীভাবে পালন করা যায় তাই নিয়ে একটি ভার্চুয়াল সভার আয়োজন করেছিলেন।

সেখানেই তিনি তার দাবি জানান। তিনি জানান নেতাজীর জন্মদিন এবার জাতীয় ছুটি ঘোষণা করা হোক। এবছর দেশনায়ক নেতাজী সুভাসচন্দ্র বোসের ১২৫তম জন্মদিন পালন হবে। নেতাজী সুভাসচন্দ্র বোস জন্মগ্রহণ করেছিলেন বেলা ১২টা ১৫ মিনিটে। ২৩শে জানুয়ারি নেতাজির(Subhas Chandra Bose) জন্মদিন শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়ে একটি জমায়েত করা হবে। যখন বেলা ১২টা ১৫ ঘড়িতে বেজে উঠবে তখন গোটা রাজ্য জুড়ে সাইরেন-শঙ্খ বেজে উঠবে। আর তখনই মিছিল এগোনো শুরু হবে।

মিছিলটি শেষ হবে ঠিক রেড রোড নেতাজি মূর্তির পাদদেশে। এছাড়া ওইদিন ভার্চুয়াল সভায় মুখ্যমন্ত্রী আরও জানান, নেতাজীর(Subhas Chandra Bose) নামে একটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করার চেষ্টা করা যেতে পারে। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ থাকবে হার্ভাডের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের। রাজারহাটের মতোন কোনো জায়গায় নেতাজীর নামে একটি মনুমেন্ট তৈরি করা যেতে পারে। সকলকে শঙ্খ বাজানোর পাশাপাশি তিনি মুসলিমদের আজানের মতোন কিছু করার কথা জানিয়েছেন।

দেশের তরুণ প্রজন্মের প্রতি মুখ্যমন্ত্রী বার্তা, নেতাজীকে পৌঁছে দিতে হবে তরুণ প্রজন্মের কাছে। অতীত আমরা ভুলে যাই। কিন্তু নেতাজীকে ভুললে চলবে না। নেতাজীর জন্মদিনে সকলে যাতে তাকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে তার অনুরোধ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ভার্চুয়াল সভায় অনেক ব্যক্তিবিশিষ্ট উপস্থিত ছিলেন, যেমন নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস, মুখোপাধ্যায়, শুভাপ্রসন্ন, সুগত বসু, রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত আরও অনেকে।

Related Articles