বিনোদন

বনি নয়, শ্রীদেবীর প্রথম প্রেম মিঠুন চক্রবর্তী, এক বিতর্কিত প্রেম কাহিনী

বলিউডের ‘ডিভা’ শ্রীদেবী কাপুর, খুব অল্প বয়সেই তিনি ইহ জগতের মায়া ত্যাগ করে চলে গিয়েছেন পর জগতে। আজও তাকে ভুলতে পারেননি তার অনুগামীরা। এক কথায় বলতে গেলে, তিনি চলে যাওয়ায় ‘শ্রীহীন’ হয়ে গিয়েছে বলিউড। ২০১৮ সালের ২৪শে ফেব্রুয়ারী আচমকা তার প্রয়াণের খবর একপ্রকার বিধ্বস্ত করেছিল সকলকে। তবে একইসাথে আরও একটি বিষয় ভাবিয়েছিল, তা হল মিঠুন চক্রবর্তীর কথা।

হ্যাঁ, ঠিকই শুনছেন আজ আমরা জানবো এক অসমাপ্ত প্রেমকাহিনী সম্পর্কে। যা বিয়ের পিঁড়ি পর্যন্ত পৌঁছেও সফল হয়নি। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেননা, বনি কাপুরের আগে শ্রীদেবী বিয়ে করেছিলেন মিঠুন চক্রবর্তীকে। তবে তাদের মাঝখানে তৃতীয় ব্যক্তি হিসেবে ঢুকে যান বনি কাপুর। উল্লেখযোগ্য, ‘মৃগয়া’ সিনেমার মাধ্যমে নিজের কেরিয়ার শুরু করেন মিঠুন(Mithun Chakraborty)। যদিও এরপর জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি।

তবে আজ তিনি যে জায়গায় পৌঁছেছেন তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে যোগিতা বালির। যোগিতা ও মিঠুন বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও শ্রীদেবীর(Sridevi) সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ওই অভিনেতা। এই বিষয়ে একটি সাক্ষাৎকারে যোগিতা জানান, মিঠুন(Mithun Chakraborty) দ্বিতীয় স্ত্রী আনলেও তার কোনো সমস্যা নেই। তবে জানা গিয়েছে তিনি আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন। এরপর ভেঙে যায় মিঠুন-শ্রীদেবী’র প্রেম।

এই অবস্থায় শ্রীদেবী(Sridevi) যখন বুঝতে পারলেন সংসার ছেড়ে মিঠুন(Mithun Chakraborty) আসবেন না, তাইতো ধীরে ধীরে নিজেকে সরিয়ে নেন তিনি। ‘গুরু’ ছবির শেষ দৃশ্যই ছিল তাদের একসাথে করা শেষ কাজ। ঠিক এই সময়েই তার জীবনে আসেন বনি কাপুর। যদিও বনি বিবাহিত ছিলেন, তবে সেই সম্পর্ক ভেঙে বিয়ে করেন শ্রীদেবীকে(Sridevi)। এরপর জন্ম হয় দুই কন্যা সন্তান জাহ্নবী ও খুশির। তবে ভরা সংসার ফেলে দুবাইয়ে প্রয়াত হন এই অভিনেত্রী।

Related Articles