বিনোদনভাইরাল ভিডিও

সম্পূর্ণ খালি গলায় মে-য়ের সাথে তাল মিলিয়ে অ-সা-ধারণ গান গাইছেন রানু মন্ডল, প্র-শংসায় ভরিয়ে দিলো ভ-ক্তরা!

রানাঘাট স্টেশনে লতা মঙ্গেশকরের ‘এক প্যায়ার কা নাগমা হ্যায়’ গান গেয়ে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলেন রানাঘাটের রানু মন্ডল। তারপর সেখান থেকে বলিউডে পাড়ি। বলিউডে জনপ্রিয় হয়ে সেখানে গানও গেয়েছেন হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে। রানু মন্ডলের গাওয়া ‘তেরি মেরি কাহানি’ গানটি এমন কোনো পুজো প্যান্ডেল ছিল না যেখানে বাজেনি। নিত্যদিন নতুন নতুন সুযোগ। ধীরে ধীরে লাইমলাইট থেকে ক্রমশ ধূসর হয়ে গিয়েছেন রানাঘাটের রানু।

আগে তিনি কখন কী করছেন, কী পরছেন, কোথায় যাচ্ছেন তা নিয়েই মেতে থাকতো সবাই। চারদিকেই একটিই নাম ছিল রানু মন্ডল। তবে বর্তমানে তার অবস্থা দেখে অনেকেই বলছেন, অহঙ্কার পতনের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে রানু মন্ডলের। যখন তিনি ক্রমশ খ্যাতি পেতে শুরু করেছেন তখন তার আদবকায়দাই বদলে যায়। অনুরাগীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করতে শুরু করেন। তবে রানু মন্ডলের যে ভিডিওটি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে রানু মন্ডল ও তার মেয়ে এলিজাবেথ সাথী রায় একসঙ্গে একটি গান গাইছেন।

গানটি হল ১৯৬৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘ব্রহ্মাচারী’ ছবি থেকে মহম্মদ রফির গাওয়া ‘আজকাল তেরে মেরে প্যায়ার কে চর্চে’ গানটি। রানু মন্ডলের গানের ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসতেই বহু মানুষ তার প্রশংসা করেছেন। মা ও মেয়ে দুইজনে মিলে গানটি গাইছেন। তাদের গানের ভিডিও ‘আজকাল’ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশ করা হয়। ভিডিওটি এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষেরও বেশি মানুষ দেখেছেন। শেয়ার বেড়ে চলেছে ক্রমশ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পৃথিবীর অন্য প্রান্তে কী হচ্ছে তা আমরা সহজেই জানতে পারি। সেরকম ভাবেই আগের মতো ফের ভাইরাল হয়েছে রানুর গানের ভিডিও। এই সোশ্যাল মিডিয়াই তাকে নিয়ে গিয়েছিল মুম্বাইতে। রানাঘাট স্টেশনের ভিক্ষুক রানু মন্ডলের গাওয়া একটি গান তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। প্রচুর লোকে তা পছন্দ করেন। আর তারপরেই তিনি মুম্বাই পাড়িয়ে দেন বলিউডের সিনেমার জন্য গান করতে। তবে তার খ্যাতি অনেকাংশেই হ্রাস পেয়েছে অহংকারের

Related Articles