বিনোদন

‘প্রতিভা থাকলে গডফাদার লাগে না’, শুধু মাত্র নিজের কাজের দক্ষতায় কেরিয়ার গড়েছেন এই ৭ বলি তারকা

বলিউড এবং স্বজনপোষণ যেন একে অপরের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে গিয়েছে। কারণ, বিভিন্ন সময় এমন অনেক পরিচালকের নাম উঠে এসেছে যারা স্টারকিডদের সুযোগ করে দিয়েছেন সিনেমায়। অথচ এমন অনেক প্রতিভা রয়েছে যারা সুযোগের অভাবে প্রকাশ পায়নি। তবে আজ আমরা এমন কিছু তারকার সম্পর্কে জানবো যারা কোনরকম গডফাদারের সাহায্য ছাড়াই নিজস্ব পরিচিত করে তুলেছেন বলিউডে।

শাহরুখ খান: খুব অল্প বয়সে তিনি তার বাবাকে হারিয়েছিলেন। এরপর থেকে থিয়েটারে ভলেন্টিয়ারের কাজ থেকে শুরু করে সবকিছু করতে শুরু করেন তিনি। এরপর ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা’ সিনেমার হাত ধরে বলিউডে অভিষেক ঘটে তার। আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। বর্তমানে তার জায়গা নিয়ে বলার অপেক্ষা রাখে না।

ঐশ্বর্য্য রাই: ১৯৯৪ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ খেতাব লাভ করার পর আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। কাজ করেছেন একাধিক সুপারহিট সিনেমায়। এখনো অনেক সিনেমায় অভিনয় করে চলেছেন এই অভিনেত্রী।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: মাত্র ১৭ বছর বয়সেই তিনি ‘মিস ওয়ার্ল্ড’এর খেতাব লাভ করেছিলেন। এরপর বলিউড থেকে শুরু করে হলিউডেও নিজের পরিচিতি তৈরি করেছেন তিনি।

দীপিকা পাড়ুকোন: তার বাবা বিখ্যাত ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় প্রকাশ পাড়ুকোন। তবে কেরিয়ার হিসেবে অভিনয়কেই বেছে নিয়েছেন তিনি। ২০০৭ সালে ‘ওম শান্তি ওম’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন এই অভিনেত্রী। এরপর দর্শকদের তিনি উপহার দিয়েছেন একাধিক সুপারহিট সিনেমা।

কঙ্গনা রাণাওয়াত: এই অভিনেত্রীকে চেনেন না এমন মানুষ নেই বললেই চলে। বলিউডে তিনি ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’ নামেও পরিচিত। কারণ, সিনেমা ছাড়াও একাধিক সমালোচনায় জড়িয়েছেন এই অভিনেত্রী। তবে কাজ করেছেন একাধিক জনপ্রিয় সিনেমায়।

অনুষ্কা শর্মা: বলিউডের সাথে দূরদুরান্ত পর্যন্ত কোনো সম্পর্ক ছিল না তার। তার বাবা একজন আর্মি অফিসার। তবে ২০০৮ সালে ‘রব নে বানা দি জোড়ি’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে কাজ শুরু করেন তিনি। এরপরের কাহিনী সকলেই জানেন।

৫. কার্তিক আরিয়ান: তার বাবা-মা দুজনেই চিকিৎসক এবং তিনি ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েছেন। তবে এসব বাদ দিয়ে অভিনয়কে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনি।

Related Articles